পবিত্র হত্যাকারী

From Sunnipedia
Revision as of 17:22, 19 September 2015 by Khasmujaddedia1 (Talk | contribs) (Created page with "মক্কা মুয়াজ্জমায় অলিদ নামে এক কাফের বাস করতো। ওর একটি সোনার মূর...")

(diff) ← Older revision | Latest revision (diff) | Newer revision → (diff)
Jump to: navigation, search

মক্কা মুয়াজ্জমায় অলিদ নামে এক কাফের বাস করতো। ওর একটি সোনার মূর্তি ছিল। সেটার সে পূজা করতো। একদিন সেই মূর্তিও মধে নাড়াচড়া লক্ষ্য করা গেল এবং সেই মূর্তি বলতে লাগলো, হে মানবগণ, মুহাম্মদ আল্লাহর রসূল নয়। ওকে কখনও বিশ্বাস কর না (মায়াজাল্লা)। অলিদ দারুন খুশে হলো, বাইরে গিয়ে বন্ধু বান্ধবদেরকে বললো, সুসংবাদ, আজ আমার মাবুদ কথা বলেছে। সুষ্পষ্টভাবে বলেছে যে মুহাম্মদ আল্লাহর রসূল নয়। এট শুনে লোকেরা ওর ঘরে এসে দেখলো যে বাস্তবিকই মূর্তি একথাটা বার বার বলতেছে যে, মুহাম্মদ আল্লাহর রসূল নয়। ওরাও দারুন খুশি হলো। পরের দিন ব্যাপক প্রচারের মাধ্যমে অলিদের ঘরে বিরাট জমায়েতের ব্যবস্থা করা হলো যাতে সবাই মূর্তিও মূথ থেকে সেকথাটা শুনতে পায়। লোকেরা হুযুর (সল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়াসাল্লাম)কেও আমন্ত্রন জানালো যেন হুযুরও এসে মূর্তির মূখে সেই কথাটা শুনেন। হুযুর (সল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়াসাল্লাম) যখন তশরীফ নিয়ে গেলেন তখন সেই মূর্তি বলে উঠলো

হে মক্কাবাসী, ভাল মত জেনে নাও, মুহাম্মদ আল্লাহর সত্যিকার রসূল। তাঁর প্রতিটি বাণী সত্য। তাঁর ধর্ম বরহক। তোমরা এবং তোমাদের মূর্তি মিথ্যা, পথভ্রষ্ট এবং পথভ্রষ্টকারী। তোমরা যদি এ সত্যিকার রসূলের প্রতি ঈমান না আন, তাহলে জাহান্নামে যাবে। অতএব বুদ্ধিমত্তার সাথে কাজ কর এবং এ সত্যিকার রসূলের গোলামী কর।

মূর্তির এ বক্তব্য শুনে অলিদ ভীষন ঘাবড়িয়ে গেল এবং স্বীয় মাবুদকে হাতে নিয়ে মাটিতে নিক্ষেপ করে টুকরা টুকরা করে ফেলল।

হুযুর (সল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়াসাল্লাম) বিজয়ী বেশে ওখান থেকে রওয়ানা হলেন। পথে সবুজ পোষাকধারী এক অশ্বারোহী হুযুরের সাথে সাক্ষাৎ করলেন, ওর হাতে একটি তলোয়ার ছিল, যার থেকে রক্ত পড়ছিল। হুযুর জিজ্ঞেস করলেন, তুমি কে? সে বললো, হুযুর, আমি জ্বীন এবং আপনার একজন নগণ্য গোলাম ও মুসলমান। আমি তুর পাহাড়ে থাকি। আমার নাম মহিন ইবনুল আবর। আমি কিছু দিনের জন্য অন্যত্র গিয়েছিলাম। আজই ঘরে ফিরে এসেছি। ঘরে এসে দেখি আমার পরিবারের সদস্যরা কাঁদতেছে। এর কারণ জিজ্ঞেস করে জানতে পারলাম যে এক কাফির জ্বীন যার নাম মুসাফফর সে মক্কা গিয়ে অলিদের মুর্তির মধ্যে প্রবেশ করে হুযুরের বিরুদ্ধে যা-তা বলে এসেছে। আজও রওয়ানা হয়েছিল আপনার সম্পর্কে যা-তা বলার জন্য। ইয়া রসূলুল্লাহ এটা শুনে আমার ভীষন রাগ আসলো। তাই তলোয়ার নিয়ে ওর পিছে ছুটলাম এবং রাস্তায় তাকে হত্যা করে ছেলেছি। অতঃপর আমি নিজেই অলিদের মূর্তির ভিতরে প্রবেশ করে আজকের এ বক্তব্য রাখলাম, ইয়া রসূলাল্লাহ্।

হুযুর এ ঘটনা শুনে খুবই সন্তুষ্টি প্রকাশ করলেন এবং তাঁর এ আনুগত জ্বীনের জন্য দুআ করলেন।

সবকঃ

আমাদের হুযুর (সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) জ্বীনদের রসূল এবং হুযুর (সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) এর পবিত্র শান মানের বিপরীত কোন কিছু শুনানোর জন্য সমাবেশ করা অলিদের মত কাফিরের সুন্নত।

তথ্যসূত্র

  • জামেউর মুজিজাত-৮ পৃঃ
  • ইসলামের বাস্তব কাহিনী - ১ম খন্ড